খুলনা | রবিবার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭ |

Shomoyer Khobor

ঝুঁকিতে চলছে পরিবহন, নষ্ট হচ্ছে গাড়ির যন্ত্রাংশ

নগরীর এম এ বারী লিংক রোডে খানা-খন্দ, ভোগান্তিতে নগরবাসী 

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১০ অগাস্ট, ২০২০ ০০:২৬:০০

নগরীর সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল সংলগ্ন এম এ বারী লিংক রোডটি বেহাল দশা। তিন কিলোমিটার সড়কের দুই কিলোমিটারই সৃষ্টি হয়েছে খানাখন্দ। চলতি বর্ষা মৌসুমে কোথাও কোথাও পানি জমে পুকুরের মতো জলাশয় হয়েছে। নগরীতে প্রবেশের ক্ষেত্রে ব্যস্ততম এ সড়কটিতে পরিবহনসহ যানবাহন চলাচলে বিঘিœত হচ্ছে। চরম ভোগান্তি পড়ছে জনসাধারণ।
জানা যায়, শহরকে সম্প্রসারিত করার লক্ষে সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিন্যাল সংলগ্ন বাইবাস সংযোগ সড়ক নির্মাণ উদ্যোগ গ্রহণ করে কেডিএ (খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ)। ২.৩৭ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে এ সংযোগ সড়কটি নির্মানে ব্যয় ধরা হয় প্রায় ১৮ কোটি টাকা। ২০১১ সালের ৩০ মার্চ প্রথম সংশোধিত প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন পায়। সড়কটির নির্মাণ কাজের টেন্ডারের আহ্বান করা হয় ২০১১ সালের ৭ সেপ্টেম্বর। সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে কাজটি পায় ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ডিয়েনকো লিমিটেড। ওয়ার্ক অর্ডার হয় ওই বছরের ২২ ডিসেম্বর। নির্মাণ কাজ শেষ হয় ২০১৩ সালের ৩০ জুন। কাজ শেষ হওয়ার কিছু দিন পর খুলনা সিটি কর্পোরেশন ও এজিইডিকে সড়কটি হস্তান্তর করে কেডিএ (খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ)। সড়কটির মহানগরীর অংশ রক্ষণাবেক্ষণ করবে খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি) এবং বাকি অংশ এলজিইডি। কিন্তু সংস্কারের অভাবে রোডটি সম্প্রতি বেহাল দশা। তিন কিলোমিটার সড়কের দুই কিলোমিটার জুড়েই সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় খানা-খন্দ। চলতি বর্ষা মৌসুমে কোথাও কোথাও পানি জমে পুকুরের মতো জলাশয়ের আকার ধারণ করেছে। এ অবস্থায় নগরীতে প্রবেশের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ব্যস্ততম এই সড়কটিতে স্বাভাবিক পরিবহনসহ যানবাহন চলাচল বিঘিœত হচ্ছে। চরম ভোগান্তিতে পড়ছে জনসাধারণ।
বাস চালকরা বলেন, তিন বছর ধরে সড়কটি চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। কিন্তু মেরামত করা হচ্ছে না। পিচের সড়কে ইট বিছিয়ে চলাচলের উপযোগী করা হলেও ফের তা উঠে বেহাল হয়ে গেছে। এ অবস্থায় গাড়ির বডিসহ নিচের অংশ চরম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। নতুন নতুন গাড়ি বেকে তেড়ে যাচ্ছে।
কেডিএ’র কর্মকতারা জানান, সড়কটি হাইওয়ের আদলে খুব মজবুত করে  তৈরি না হওয়ায় অতিরিক্ত গাড়ি চলাচল, বৃষ্টি ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। 
কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ এজাজ মোর্শেদ চৌধুরী বলেন, বিষয়টি তার নলেজে রয়েছে। বৃষ্টির পর মেরামত কাজ শুরু করা হবে। 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ










খুমেক ল্যাবে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত

খুমেক ল্যাবে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:২৫




ব্রেকিং নিউজ











খুমেক ল্যাবে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত

খুমেক ল্যাবে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:২৫