খুলনা | শুক্রবার | ০২ অক্টোবর ২০২০ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ |

Shomoyer Khobor

ঢাকা রেঞ্জের এসপি জিয়াউল হকের বিরুদ্ধে  ৫ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০১:০২:০০


পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের সুপারিনটেনডেন্ট (প্রশিক্ষণ ও গণমাধ্যম) জিয়াউল হকের বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চেয় আদালতে মামলা হয়েছে। জাকির হোসেন চৌধুরী নামে এক ব্যবসায়ী বাদী হয় মঙ্গলবার ঢাকার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ উৎপল ভট্টাচার্যের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।
বিবাদী সমন তিনি পেলেন কিনা তা জানার জন্য বিচারক ১৫ অক্টোবর পরবর্তী শুনানির দিন রাখেন বলে সেরেস্তাদার জাহাঙ্গীর আলম আলো জানিয়েছেন।
মামলার আরজি থেকে জানা যায়, মামলার বাদীর ভাই বাচ্চু হোসেনের গোপালগঞ্জের ১০৭ নম্বর হিরাবাড়ি লেনে একটি মুদী দোকান ছিল। গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মনিরুল ইসলাম ও এস আই গোলাম কিবরিয়া প্রায় দোকানে যেত। তারা দোকানের মালামাল নিয় টাকা না দিয় চলে যেতেন। একদিন এসআই গোলাম কিবরিয়া ও তার সোর্স প্রবাল বিশ্বাস এসে কফি খেতে চান। বাচ্চু মিয়া কফির পানি গরম নেই বলে তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। গত ৭ মে প্রবাল বিশ্বাস তার দোকানে এসে চা পান করে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পর প্রবাল দোকানে এসে বাচ্চুকে বলেন, তোমার দোকানে একটি ব্যাগ ফেলে রেখেছি, যাতে এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা ছিল। তুমি কি পেয়ছ? তখন বাচ্চু ব্যাগ পাইনি বলে জানালে এস আই গোলাম কিবরিয়া তাকে থানায় নিয় বেদম প্রহার করে সাদা কাগজে সই নিয় ছেড়ে দেন। এরপর থানা থেকে বের হয় গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন বাচ্চু মিয়া। হাসপাতাল থেকে ১৬ মে ছাত্রপত্র নিয় পুলিশ সদর দপ্তরে নির্যাতনের বিচার চেয় আবেদন করেন। এর তদন্ত ভার দেওয়া হয় এসপি জিয়াউল হককে। তিনি অভিযোগের সত্যতা পাননি বলে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।
বাদীর আইনজীবী মাইনউদ্দিন জানান, পুলিশের কায় অভিযোগ দেওয়ার পর বাচ্চু ও তার স্ত্রী সাহিদার বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জে পুলিশের সোর্স মিথ্যা মামলা করেন। নির্যাতনের পরও পুলিশ বাচ্চুর বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দেওয়ায় পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে দাবি করে তার ভাই জাকির হোসেন বাদী হয় মামলা করেন।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ




করোনাকালেও বেড়েছে  রেমিট্যান্স

করোনাকালেও বেড়েছে  রেমিট্যান্স

০২ অক্টোবর, ২০২০ ০০:৪৯










ব্রেকিং নিউজ