খুলনা | বৃহস্পতিবার | ০৪ মার্চ ২০২১ | ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭ |

Shomoyer Khobor

বাবা-মায়ের উৎসাহ আর প্রেরণায় পথ চলা 

পর্দায় থেকেও অনলাইন প্লাটফর্মে সফল ব্যবসায়ী মৃদুলা

সুরাইয়া ইসলাম মীম  | প্রকাশিত ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০০:১৫:০০

ধার্মিক পরিবারে বেড়ে ওঠা মৃদুলা সুমাইয়া যে কিনা কখনোই পর্দার বাইরে যাননি, তিনিও পর্দায় থেকে আজ ব্যবসা করছেন ঘরে বসেই। বোরখা, হিজাব, নিকাব, খিমার, হাত মোজা, পা মোজাসহ মৃদুলার নিজের তৈরি নারীদের বিভিন্ন পোষাক নিয়ে গড়ে তুলেছেন “মৃদু’স ফ্যাশন কালেকশন”। ২০১৪ সাল থেকে মৃদুলা পরিবারের সহায়তায় আজ সফল উদ্যোক্তা।
মৃদুলার আজ উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার সূত্রপাত মৃদুলার বাবার হাত ধরেই। ২০১৪ সালে তার বাবা তাকে একটি সেলাই মেশিন কিনে দিয়েছিলেন। তখন থেকেই তিনি পোশাক তৈরির কাজ শুরু করেন নিজের এলাকার ভিতরেই। তার কাজ তখন সীমাবদ্ধ ছিল নিজ এলাকা এবং আত্মীয় স্বজনদের ভিতরেই। ছোট বেলা থেকেই ধর্মীয় নিয়মে পর্দা করেন মৃদুলা। বোরখা হিজাব কিনতে গেলেই নিজের মাপ এবং পছন্দ অনুযায়ী পেতেন না মৃদুলা। তখন তিনি ভেবে দেখলেন তিনি বোরখা, হিজাব, নিকাব নিজেই তৈরি করা শুরু করবেন। আর এই ব্যবসা বাণিজ্যিক প্লাটফর্মে নেওয়ার জন্য তিনি নিজস্ব অভিজ্ঞতার পাশাপাশি যুব উন্নয়ন সংস্থা থেকেও প্রশিক্ষণ নিয়ে অনলাইন প্লাটফর্মে কাজ শুরু করেন। 
মৃদুলা বলেন, “মৃদু’স ফ্যাশন কালেকশন”- প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে ভালো খারাপ উভয় রকম অভিজ্ঞতা হয়েছে। ছোটবেলা থেকেই আমার ইচ্ছা ছিল নিজের পায়ে দাঁড়ানোর  তবে  আমার পরিবারের  প্রত্যেকেই শিক্ষিত হওয়া সত্তে¡ও কোন মেয়ে চাকরি করে না তার একটি মাত্র কারণ আমার পরিবার ধার্মিক। পর্দা করা আমাদের বাড়ির মেয়েদের নিয়ম। কিন্তু আমি হাল ছেড়ে দেইনি। পড়া শোনার পাশাপাশি নিজের স্বপ্ন কে সামনে রেখে এগিয়ে যায় পর্দা করেই। অনেকে ভয় দেখিয়েছেন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে, ঠাট্টা বিদ্রুপ ও করতে থাকে। বেশির ভাগ মানুষ আমাকে বলতেন পর্দা করে আর যায় হোক ব্যবসা করা সম্ভব না।  আবার অনেকে চ্যালেঞ্জ করেছেন পর্দা করে কিভাবে ব্যবসা চালাতে পারি এটা নিয়ে।  সব বাধা পেরিয়ে আলহামদুলিল­াহ আমার তৈরি হিজাব, নিকাব, খিমার বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে  গেছে।
আজকের মৃদলার উদ্যোক্তা হওয়ার পেছনে সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করেছেন তার মা-বাবা এবং ভাই- বোন। বড় ভাই আব্দুর রহমান সব সময় তাকে সাহস জুগিয়েছেন। অনুপ্রেরণা পেয়েছেন বড় বোন হাবিবার কাছ থেকে। এছাড়াও বোরখা ডিজাইনে অনেক বেশি সহযোগিতা করেন তার ছোট বোন মাহবুবা।
মৃদুলা স্বপ্ন দেখেন খুলনা শহরে ছোট একটি কারখানা দেওয়ার, যেখানে থাকবে “মৃদু’স ফ্যাশন কালেকশন”-এর নিজস্ব পোশাক। নিজের কারখানায় তৈরি হিজাব, খিমার ও বোরখা রপ্তানি হবে দেশের বাইরেও। এছাড়াও মৃদুলা বলেন, আমার ব্যবসার পাশাপাশি পর্দার খেলাফ হইনি কখনোই এবং ইনশাহ্আল­াহ সামনের দিন গুলোতেও আশা করি পর্দার খেলাফ হবে না। সকল নারী উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো, পর্দা করেও সফল উদ্যোক্তা  হওয়া সম্ভব। নিজের সম্মান নিজের কাছেই, নিজের মাঝে যোগ্যতা থাকলে সেটা প্রকাশ পাবেই পর্দার সাথেও। সেজন্য নিজের ইচ্ছাশক্তি কে জাগিয়ে তুলতে হবে জীবনের প্রতিটি ধাপে। তবেই পরকালের সাথে সাথেও হওয়া সম্ভব সফল। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ





ফসলের সাথে এ কেমন শত্রুতা

ফসলের সাথে এ কেমন শত্রুতা

০৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০









ব্রেকিং নিউজ





ফসলের সাথে এ কেমন শত্রুতা

ফসলের সাথে এ কেমন শত্রুতা

০৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০