খুলনা | শনিবার | ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ৪ বৈশাখ ১৪২৮ |

নাগরিক নেতা ফিরোজ আহমেদের ৭ম প্রয়ান দিবস আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ০৯ মার্চ, ২০২১ ০৬:৫২:০০

খুলনা তথা দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের নাগরিক আন্দোলনের পুরোধা এ্যাড. ফিরোজ আহমেদের ৭ম প্রয়ান দিবস আজ, ০৯ মার্চ। দুরারোগ্য ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ২০১৪ সালের আজকেরদিনে মাত্র ৬৪ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন গণমানুষের প্রিয় এই নেতা। রাজপথের আন্দোলনে আজীবন গণমানুষের পক্ষে অবস্থান নেয়ার কারণে স্থানীয় সাংবাদিকরা এ্যাড. ফিরোজ আহমেদকে খুলনার নাগরিক নেতা হিসাবে অভিহিত করেন। তার মতো করে গণমানুষের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে আর কেউ এগিয়ে আসেননি।

আজকের কর্মসূচি : কমরেড এ্যাড. ফিরোজ আহমেদের ৭ম মৃত্যুবার্ষিকীতে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি খুলনা জেলার উদ্যোগ স্মরণ সভা আজ মঙ্গলবার বেলা ২টায় খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির বঙ্গবন্ধু ভবনের ১নং হল রুমে অনুষ্ঠিত হবে। খুলনা মহানগর সিপিবি'র উদ্যোগে স্মরণ সভা আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দলীয় কার্যালয়ে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. ফিরোজ আহমেদ ১৯৫৪ সালের ১ জুলাই নড়াইল জেলার কালিয়ায় জম্মগ্রহণ করেন। তিনি ছাত্রজীবনে ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজ, সেন্ট জোসেফস স্কুলে পড়াশুনা করতেন। তিনি তখন ছাত্র অবস্থায় স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ছাত্র অবস্থায় ছাত্র ইউনিয়নের জেলা কমিটির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ছিলেন। পরে কমিউনিষ্ট আন্দোলনে যোগ দেন। জীবিতকাল পর্যন্ত সিপিবির সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনি সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও নগর সভাপতিসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। একাধিকবার দল থেকে মেয়র ও সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি দক্ষিণ-পশ্চিম জনপদের পরিবেশ আন্দোলনের রাজপথের যোদ্ধা বিল ডাকাতিয়া জলাবদ্ধতা, অপরিকল্পিত  চিংড়ি চাষ, খাস জমি আন্দোলনের অন্যতম নেতা। বামপন্থী রাজনৈতিক কর্মী। খুলনার কল-কারখানা রক্ষা, সুন্দরবণ সংরক্ষণ, মংলা বন্দর বাঁচাও আন্দোলনের সংগঠক। বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবীদ সমিতি(বেলা), খুলনার সমন্বয়কারী, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি এবং খুলনা নাগরিক সমাজের সদস্য সচিব ছিলেন। জনউদ্যোগ খুলনার উপদেষ্টা, খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির পর পর চার বার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। সরকারী বিএল কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সিনেট সদস্য। খুলনায় অনুষ্ঠিত সুন্দরবণ মেলার অন্যতম সংগঠক। ১৯৮০ সালে বার্লিন আন্তর্জাতিক ছাত্র সম্মেলনে, ১৯৮৬ সালে ম্যানিলায় এশীয় শ্রমিক সম্মেলনে, ১৯৮৭ সালে ব্যাংককে আন্তর্জাতিক পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক সেমিনারে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি হিসাবে অংশগ্রহণ করেন।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ











মনে পড়ে রানা মনে পড়ে সেতু

মনে পড়ে রানা মনে পড়ে সেতু

১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:২০



ব্রেকিং নিউজ


ছুরিকাঘাতে ফুফাতো ভাইকে হত্যা 

ছুরিকাঘাতে ফুফাতো ভাইকে হত্যা 

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ১৭:০৭






করোনামুক্ত হলেন এমপি চুমকি

করোনামুক্ত হলেন এমপি চুমকি

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:১৫