খুলনা | বুধবার | ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮ ফাল্গুন ১৪৩০

টাঙ্গাইল শাড়ি, গোপালগঞ্জের রসগোল্লা, নরসিংদীর অমৃত সাগর কলার জিআই সনদ হস্তান্তর

জিআই পণ্য নিয়ে সবাইকে তৎপর হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

খবর প্রতিবেদন |
০৪:৫৩ পি.এম | ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪


ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য নিয়ে সবাইকে তৎপর হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়। সভা শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন এ তথ্য জানান।
আলোচ্যসূচির বাইরে প্রধানমন্ত্রী কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কি না-জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, একটি নির্দেশনা তিনি দিয়েছেন যে, জিআই পণ্যগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে, সেখানে তিনি সংশ্লিষ্টদের তৎপর হওয়ার জন্য বলেছেন। সবাইকে তিনি তৎপর হয়ে আমাদের যে পণ্যগুলো আছে সেগুলোর বিষয়ে যাতে উদ্যোগ নিয়ে করে ফেলা হয়।
তিনটি পণ্যের জার্নাল প্রকাশ করা হয়েছে জানিয়ে সচিব বলেন, সেগুলোর কপি প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া হয়েছে। টাঙ্গাইলের শাড়ি, গোপালগঞ্জের রসগোল­া ও নরসিংদীর অমৃত সাগর কলার জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতির সনদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ভারত সরকারের টাঙ্গাইল শাড়িকে জিআই নির্দেশক পণ্য হিসেবে সনদ দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলেও জানান মাহবুব হোসেন।
তিনি বলেন, এ রকম কনফ্লিকটেড কিছু যদি থাকে, সেজন্য একটা আন্তর্জাতিক সংস্থা আছে। এ রকম কিছু থাকলে আমরা সেখানে যেন সেগুলো উপস্থাপন করি, সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
এর আগে বহুল আলোচিত টাঙ্গাইল শাড়িসহ সদ্য নিবন্ধিত তিনটি পণ্যের ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) সনদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  রোববার বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শিল্প মন্ত্রণালয়ের পেটেন্ট, শিল্প-নকশা ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর টাঙ্গাইল শাড়ি, নরসিংদীর অমৃত সাগর কলা, গোপালগঞ্জের রসগোল­ার জিআই সার্টিফিকেট ও টাঙ্গাইলের শাড়ি হস্তান্তর করেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন ও মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জাকিয়া সুলতানা।
জিআই কেন গুরুত্বপূর্ণ, বাংলাদেশের যেসব পণ্য জিআই ট্যাগ পেলজিআই কেন গুরুত্বপূর্ণ, বাংলাদেশের যেসব পণ্য জিআই ট্যাগ পেল শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর (ডিপিডিটি) গত ৭ ফেব্র“য়ারি টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই নিবন্ধন অনুমোদন দেয়। 
নতুন তিনটি পণ্যসহ বাংলাদেশের মোট ২২টি পণ্য জিআই সনদ পেল। এর আগে নিবন্ধিত পণ্যগুলো হলো জামদানি শাড়ি, বাংলাদেশের ইলিশ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাতি আম, বিজয়পুরের সাদা মাটি, দিনাজপুরের কাটারিভোগ, বাংলাদেশের কালোজিরা, রংপুরের শতরঞ্জি, রাজশাহীর সিল্ক, ঢাকার মসলিন, বাংলাদেশের বাগদা চিংড়ি, রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের ফজলি আম, বাংলাদেশের শীতলপাটি, বগুড়ার দই, শেরপুরের তুলসীমালা, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ল্যাংড়া আম, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আশ্বিনা আম, বাংলাদেশের ব¬্যাক বেঙ্গল ছাগল, নাটোরের কাঁচাগোল­¬া, টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়ির চমচম, কুমিল­¬ার রসমালাই ও কুষ্টিয়ার তিলের খাজা।
এরপর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেজ ওসমানের কবিতার বই ‘পিতারই প্রতিচ্ছবি’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী।
এ সময় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ