খুলনা | রবিবার | ১৪ এপ্রিল ২০২৪ | ৩০ চৈত্র ১৪৩০

‘আ. লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বলেই বিএনপিকে নিষিদ্ধ করতে চায়’ : মঈন খান

খবর প্রতিবেদন |
০১:৫৩ পি.এম | ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪


গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বলেই আওয়ামী লীগ বিএনপিসহ সব বিরোধী দলকে নিষিদ্ধ করে দিতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান।

তিনি বলেন, এই সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। তাই তারা দেশ থেকে বিরোধী দলকে নিষিদ্ধ করে দিতে চায়। এখানে আইন বলতে বোঝায়, তাদের মুখ থেকে যে কথা বের হয়। সেটাই তাদের আইন।

রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। তাঁতী দলের ৪৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ শ্রদ্ধা জানানো হয়।  

মঈন খান বলেন, সাংবিধানিক অধিকারের পরিপ্রেক্ষিতে দেশে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল গঠিত হয়েছে, আমরা কথা বলছি। আজকে সরকার যদি বিএনপি তথা বিরোধী দলগুলোকে নিষিদ্ধ করে দিয়ে কাগজে-কলমে লিখিত বাকশাল নতুন করে তারা কায়েম করে, যে রকম তারা একবার করেছিল সংসদের ভেতরে ১১ মিনিটের ব্যবধানে। তারা নতুন করে বাকশাল কায়েম করে তাহলে আজকে পুনরায় প্রমাণিত হবে, আওয়ামী লীগ সরকার যারা নিজেদের স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি বলে দাবি করে, সেটা তাদের ভুয়া দাবি। তারা কোনো দিন গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে নাই।

গণতন্ত্রে বিশ্বাস না করলেই একটি সরকার দেশ থেকে সব বিরোধী দলকে নিষিদ্ধ করে দিতে পারে বলে মন্তব্য করে বিএনপির শীর্ষ এই নেতা বলেন, সরকার সেই পথে আজকে হাঁটছে। কাজেই দেশের ১৮ কোটি মানুষকে সতর্ক হতে হবে, দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আওয়ামী লীগের হাতে নিরাপদ নয়। স্বাধীনতার মূল আদর্শে আওয়ামী লীগ আঘাত করেছে।

দেশ থেকে যদি বিরোধী দলকে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হলে গণতন্ত্রের স্পেস কোথায় বলে প্রশ্ন রেখে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, মূল কথা আওয়ামী লীগ ক্ষমতা কুক্ষিগত করার জন্য বিচার বিভাগকে কুক্ষিগত করেছে। তারা বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে চায়। এটাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের মানসিকতা।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ