খুলনা | রবিবার | ১৪ এপ্রিল ২০২৪ | ৩০ চৈত্র ১৪৩০

নগরীতে দুই শিশু ধর্ষণ মামলায় মাহিন্দ্রা চালক হিরুর যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক |
০১:২৯ এ.এম | ০৪ মার্চ ২০২৪


নগরীর খালিশপুরে দুই শিশুকে ধর্ষণ মামলায় হিরু মিয়া নামের মাহিন্দ্রা চালককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায় আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। গতকাল রোববার বিকেলে খুলনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক আব্দুস সালাম খান এ রায় ঘোষণা করেন। তবে আসামি হিরু মিয়া পলাতক।
সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ২৬ অক্টোবর ধর্ষণের শিকার এক শিশু ঘটনাটি তার মা-বাবাকে জানায়। এ ঘটনায় খালিশপুর থানায় নির্যাতিত শিশুর পিতা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। নগরীর মুজগুন্নী শেখপাড়া এলাকার একই বাড়ির ১১ ও ১০ বছরের দুই শিশু কন্যাকে খাবারের লোভ দেখিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে মাহিন্দ্রাচালক হিরু মিয়া (৫০) ধর্ষণ করে আসছিল। একপর্যায়ে এ ঘটনাটি এলাকার মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী হিরু মিয়াকে গণপিটুনি দিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই বছরের ২৭ অক্টোবর সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখান থেকে তাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। পরে জামিনে মুক্তি পেয়ে পলাতক থাকে ধর্ষক হিরু মিয়া।
আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এড. ফরিদ আহমেদ জানান, ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর লুডু খেলার কথা বলে ডেকে নিয়ে প্রতিবেশী হিরু মিয়া ১০ বছর বয়সী শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিশু মেয়ে ও তার বান্ধবীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় এক শিশুর বাবা বাদী হয়ে ঘটনার দিন খালিশপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এই রায় ঘোষণা করেন।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ