খুলনা | রবিবার | ১৪ এপ্রিল ২০২৪ | ৩০ চৈত্র ১৪৩০

শ্রেষ্ঠত্বের ধারা অব্যাহত রাখতে নির্দেশ রবিউল হাসানের

উত্তম কাজের স্বীকৃত স্বরূপ খুলনা রেলওয়ের পুলিশ সদস্যদের নগদ অর্থ ও ক্রেস্ট প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক |
০১:৪৪ এ.এম | ০৩ এপ্রিল ২০২৪


খুলনা রেলওয়ে পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ লাইন্সে অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল হাসান সভাপতিত্বে সভায় খুলনা রেলওয়ে পুলিশের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।
সভায় ১০ মিনিটে ল্যাপটপসহ ব্যাগ উদ্ধার করে দেয়ায় এএসআই মৌসুমি আক্তার, নারী কনস্টেবল/সারমিন খাতুন এবং কনস্টেবল আসলাম হোসেনকে নগদ অর্থ পুরস্কার প্রদান করা হয়। পাথর নিক্ষেপের আসামিকে সনাক্ত করে গ্রেফতার করায় এসআই (নিঃ) মোঃ শফিকুল ইসলামকেও অর্থ পুরস্কার প্রদান করা হয়। 
পুলিশ সুপার সংশ্লিষ্ট গর্বিত সদস্যগণকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন কোন কিছুর স্বীকৃতি অর্জন মানে দায়িত্ব ও কর্তব্য অধিকতর বেড়ে যাওয়া, অধিকতর অসাধারণ পারফর্ম্যান্স প্রদর্শন করা। শ্রেষ্ঠত্বের এ ধারা অব্যাহত রাখার জন্য খুলনা রেলওয়ে জেলা পুলিশ সকলকে মূল্যবান দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।সভায় জেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, কমিউনিটি, বিট পুলিশিং ও পাথর নিক্ষেপের এর কুফল সম্পর্কে সচেতনতা মূলক কার্যক্রম জোরদার করার মাধ্যমে জেলার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, মাদক বিরোধী অভিযান, টিজি ডিউটি জোরদার এবং বিট পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশ প্রদানসহ সকলকে পেশাদারিত্বের সাথে দৈনন্দিন কাজ করার আহŸান জানানো হয়। গত মাসে রুজুকৃত মামলাসমূহ কেইস টু কেইস বিশ্লেষণ করা হয়। মামলা তদন্তের মান বৃদ্ধি করাসহ তদন্তের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে পুলিশ সুপার মহোদয় দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ অফিসার ইনচার্জগণ ও আইসি-গণদের বিস্তারিত দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয়।
এছাড়াও ভার্চুয়ালি জুমের মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মজনুর রহমান, কুষ্টিয়া রেলওয়ে সার্কেলসহ খুলনা রেলওয়ে জেলার বিভিন্ন স্তরের অফিসার ও ফোর্সগণ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বিকেল ৩টায় খুলনা রেলওয়ে জেলা পুলিশ লাইন্সে মাসিক কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা রেলওয়ে পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল হাসান।
সভায় উপস্থিত রেলওয়ে পুলিশের বিভিন্ন পদবীর পুলিশ সদস্যগণ তাদের বক্তব্যে বিভিন্ন সুবিধা-অসুবিধা ও সমস্যা তুলে ধরেন। পুলিশ সুপার তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনেন এবং সমস্যা সমাধানের নিমিত্তে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাৎক্ষণিক সমাধান প্রদান ও আশ্বস্ত করে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন।
সভায় পুলিশ সুপার অফিসার ও ফোর্সদের উদ্দেশ্যে খুলনা রেলওয়ে জেলাধীন বাংলাদেশ রেলওয়ের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সকলকে পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করার আহŸান জানান। এছাড়াও পুলিশ সদস্যদের কল্যাণের সকল বিষয় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা হবে মর্মে অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।
এর আগে খুলনা রেলওয়ে জেলা পুলিশে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের সন্তানদের মধ্যে ২০২২ সালের এইচএসসি সমমান পরীক্ষায় সকল বিষয়ে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশের নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা বাংলাদেশ পুলিশের গর্বিত সদস্যগণের কৃতি সন্তান হিসেবে তোমাদেরকে ভবিষ্যতে আরো কৃতিত্ব অর্জনের মাধ্যমে বাবা-মার স্বপ্ন বাস্তবায়নে, কঠোর পরিশ্রম ও সাধনা করতে হবে। তিনি সকলের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা ও সর্বাঙ্গীন মঙ্গল করেন।
উলে­খ্য, খুলনা রেরওয়ে পুলিশে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের সন্তানদের মধ্যে এইচএসসি পরীক্ষায় মোট ২ জন কৃতি শিক্ষার্থী “বাংলাদেশ পুলিশ মেধাবৃত্তি-২০২২” প্রাপ্ত হয়েছেন।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ