খুলনা | শুক্রবার | ২১ জুন ২০২৪ | ৭ আষাঢ় ১৪৩১

চলে গেলেন বরেণ্য লেখক হোসেন উদ্দিন হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর |
০১:২৮ এ.এম | ২১ মে ২০২৪


বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য প্রাবন্ধিক, ঔপন্যাসিক ও গবেষক, বীরমুক্তিযোদ্ধা হোসেন উদ্দিন হোসেন আর নেই। সোমবার বিকেল ৪টা ৪ মিনিটে তিনি যশোর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। (ইন্নালিল­াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন, আমরাতো আল­াহর এবং আল­াহর কাছেই ফিরে যাবো)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। 
হোসেন উদ্দিন হোসেনের ছোট মেয়ে শাহানাজ রাহানা রতœা জানান, ২০১৯ সালে বাবার ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয়। পরবর্তীতে গল ব্লাডারে পাথর ধরা পড়ে। এ ছাড়াও তিনি কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন। এর মধ্যে গত ১৪ মে বাবা খুব অসুস্থ হয়ে পড়েন। এদিন তাকে যশোর শহরের কুইন্স হসপিটালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় সিএমইচে স্থানান্তর করা হয়। সিটিস্ক্যান রিপোর্টে বাবার ব্রেইন ড্যামেজ ধরা পড়েছিল। এ ছাড়া তাঁর ফুসফুসে পানি জমে। হাসপাতালটির নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁর চিকিৎসা চলা অবস্থায় সোমবার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন এই প্রখ্যাত সাহিত্যক।
কলিম উদ্দিন-আছিরননেসার সন্তান হোসেন উদ্দিন হোসেন ১৯৪১ সালের ২৮ ফেব্র“য়ারি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার পৌর শহরের কৃষ্ণনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন ‘সাহিত্য ভবন’ নামে বাড়িতে সহধর্মিণী হাসিনা আক্তারকে নিয়ে বসবাস করতেন। তাঁর ৪ সন্তানের মধ্যে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে। 
নিজ গ্রামে প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনের পর ঝিকরগাছা উচ্চ ইংরেজি বিদ্যালয় থেকে ১৯৫৭ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন। ১৯৫৯ সালে সম্পন্ন করেন উচ্চ মাধ্যমিক। ১৯৫৫ সালে তার প্রথম কবিতা কলকাতার দৈনিক পত্রিকা লোকসেবকে প্রকাশিত হয়। পরবর্তীতে তার বিভিন্ন প্রবন্ধ, গল্প, কবিতা ঢাকা ও কলকাতার বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশ হওয়া শুরু করে। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ২০২১ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভুষিত হন। ২০২২ সালের ১৫ ফেব্র“য়ারি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার গ্রহণ করেন তিনি।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ