খুলনা | মঙ্গলবার | ২৩ জুলাই ২০২৪ | ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

মেসি-মার্তিনেজের জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার দুর্দান্ত জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক |
০১:৪৪ পি.এম | ১৫ জুন ২০২৪


কদিন পরেই মাঠে গড়াবে কোপা আমেরিকা। মহাদেশীয় এ টুর্নামেন্টের আগে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে গতকাল মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। গুয়াতেমালার বিপক্ষে এই ম্যাচ দিয়েই আবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের শুরুর একাদশে ফিরেছেন লিওনেল মেসি। আর মূল একাদশে ফিরেই কোপার আগে অন্য প্রতিপক্ষগুলোকে কড়া বার্তা দিয়ে রাখলেন তিনি।

বিশ্বকাপের আগে মূল একাদশে ফিরেই জোড়া গোলের দেখা পেয়েছেন মেসি। একই সঙ্গে জোড়া গোল করেছেন লাওতারো মার্তিনেজও। এ দুজনের দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্সে ৪-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

মেসির শুরুর একাদশে ফেরার দিনে আজ গুয়াতেমালার বিপক্ষে প্রথমে পিছিয়ে পড়েছিল আর্জেন্টিনাই। নিজেদের রক্ষণ সামলে শুরু থেকেই আক্রমণে গিয়েছিল গুয়াতেমালা। ম্যাচের ৪ মিনিটের মাথায়ই প্রতিপক্ষের নেয়া একটি শট ঠেকিয়ে দেন এমিলিয়ানো মার্তিনেজ। তবে এরপর বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন লিসান্দ্রো মার্তিনেজ।

এদিকে শুরুতে পিছিয়ে পড়ার পর তুমুল আক্রমণে যায় আর্জেন্টিনা। তবে বারবার আক্রমণে যাওয়ার পরও গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারছিল মেসি ও তাঁর সটির্থরা। জমাট রক্ষণে বারবার আক্রমণ বাধাগ্রস্ত করছিল গুয়াতেমালা। তবে বেশিখণ আটকে রাখতে পারেনি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

ম্যাচের ১২ মিনিটের মাথায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের সমতায় ফেরান মেসিই। প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের ভুল পাসে সরাসরি বল পেয়ে যান ফুটবল জাদুকর। এমন সুযোগ পেয়ে বল জালে জড়াতে পারেননি ভুল করেননি তিনি।

মেসির গোলে সমতায় ফেরার পর গুয়াতেমালাকে একের পর এক আক্রমণে কোণঠাসা করে রাখে আর্জেন্টিনা। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ৩৯ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পেয়ে যায় দলটি। বক্সের ভেতরে আলবিসেলেস্তেদের ভ্যালেন্টিন কার্বোনি ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। তবে স্পটকিকটি নিজে নেননি ফুটবল জাদুকর, বল তুলে দেন লাওতারো মার্তিনেজকে। এই সুযোগে গোল করে দলকে লিড এনে দেন মার্তিনেজ।

এদিকে ২-১ গোলের লিড নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর পর গুয়াতেমালাকে আরও চেপে ধরে আর্জেন্টিনা। লিওনেল স্কালোনির শিষ্যদের তুমুল আক্রমণে আর প্রেসিংয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে প্রতিপক্ষ। আক্রমণের এক পর্যায়েই তৃতীয় গোলের দেখাও পেয়ে যায় আলবিসেলেস্তেরা। ৬৮ মিনিটে মেসির বাড়িয়ে দেয়া বলে দারুণ এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন মার্তিনেজ।

গুয়াতেমালার জালে ৩ গোল দেয়ার পর ৭৭ মিনিটে আনহেল দি মারিয়ার কাছে থেকে পাওয়া বলে দারুণ এক শটে বল জালে জড়ান মেসি। ফলে শেষ পর্যন্ত ৪-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।  

প্রিন্ট

আরও সংবাদ