খুলনা | সোমবার | ২২ জুলাই ২০২৪ | ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

সাতক্ষীরায় তিন মাসের সন্তানকে হত্যার অভিযোগে মা গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা |
০৪:৫৫ পি.এম | ০৮ জুলাই ২০২৪


সাতক্ষীরা শহর উপকণ্ঠের রইচপুর গ্রামে তিনমাসের কন্যা শিশুকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মা সুরাইয়া ইয়াসমিন মুক্তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (৭ জুলাই) রাত ১১টার দিকে সাতক্ষীরা পৌরসভার রইচপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সুরাইয়া ইয়াসমিন (৩০) রইচপুর গ্রামের মুজাফফর হোসেনের মেয়ে ও খুলনার গিলাতলা এলাকার মুছা শেখের স্ত্রী। তিনি বাবার বাড়িতেই এক ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে থাকতেন।

রইচপুর গ্রামের জাকির হোসেন জানান, সুরাইয়া ইয়াসমিনের শিশু কন্যা মমতাজ খাতুনকে রোববার বিকেল থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে তার স্বজনরা রাত এগারটার দিকে বাড়ির পুকুর থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় শিশুটির মা সুরাইয়া খাতুনকে পানিতে ডুবিয়ে সন্তান হত্যার কথা স্বীকার করতে শোনা যায়। তিনি আরও জানান, সুরাইয়াকে মাঝে মাঝে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলতে দেখা যায়। এর আগে সে তার নিজের ছেলেকেও হত্যা করার চেষ্টা করেছিল।

বিষয়টি জানার পার সদর থানায় খবর দিলে উপপরিদর্শক মাজরিহা হোসাইন ঘটনাস্থলে এসে শিশুর মা সুরাইয়া ইয়াসমিন মুক্তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহিদুল ইসলাম জানান, নিজ কন্যাকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মানসিক ভারসাম্যহীন নারী সুরাইয়া খাতুন মুক্তাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এঘটনায় শিশুটির বাবা মুছা শেখ এ ঘটনায় স্ত্রী সুরাইয়া খাতুন মুক্তাকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি আরো জানান।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ