খুলনা | সোমবার | ২২ জুলাই ২০২৪ | ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

কয়রায় প্রেমিকাকে ভিডিও কলে রেখে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি |
০৪:১৯ পি.এম | ০৯ জুলাই ২০২৪


প্রেমিকাকে ভিডিও কলে রেখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আসাদুল ইসলাম (১৭) নামে এক কলেজছাত্র। প্রেমিকার সাথে মনোমালিন্যের কারণে এ আত্মহনন বলে জানা গেছে।

আজ মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) ভোর রাতে খুলনার কয়রা উপজেলার মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের খোড়লকাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আসাদুল ইসলাম উপজেলার মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের খোঁড়ল কাটি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। তিনি কয়রার খান সাহেব কোমর উদ্দীন ডিগ্রি কলেজের একাদশ বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভোররাতে তার ভাবি মোবাইলের সমস্যা সমাধানের জন্য আসাদুল কে খুঁজতে থাকে। ঘরে না পেয়ে পাশে একটি পরিত্যক্ত ঘরের দরজা বন্ধ দেখে জানালা দিয়ে তাকে ঝুলতে দেখেন পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় দরজা ভেঙে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় আসাদুলকে নামান। ইতি মধ্যে সে মারা গেছেন। পাশে তার সোজাসোজি মোবাইল ফোনটি তার দিকে ফেরানো ছিল। পরে জানতে পারি, প্রেমিকার সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে ভিডিও কলে আত্মহত্যা করেন আসাদুল ইসলাম ।

আসাদুলের বন্ধুরা জানিয়েছে, বেশ কয়েক মাস আগে রংপুরের একটি মেয়ের সাথে আসাদুলের ফেসবুকে পরিচয় হয়। সেখান থেকেই ঘনিষ্ঠতা। রোজই দীর্ঘসময় তারা ফোনে কথা বলত, ভিডিও কল, চ্যাটও করত। মাঝে মাঝে তাদের ভিতর মনোমালিন্য হতো। আসাদুল একটু বেশি আবেগি ছিল। প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করতে পারে।

কয়রা থানার ওসি (তদন্ত) টিপু সুলতান বলেন, ভিডিও কলে কথা বলার সময় যুবক গলায় ফাঁস দিয়েছে বলে জেনেছি। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ