খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২৭ জানুয়ারী ২০২২ | ১৪ মাঘ ১৪২৮

ওমিক্রনের নতুন তিনটি উপসর্গ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক |
০৭:৩১ এ.এম | ১২ জানুয়ারী ২০২২

করোনার সবচেয়ে সংক্রামক ধরন হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে ওমিক্রন। খুব দ্রুতই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে নতুন এই ধরনটি। ইউরোপের তথ্য তুলে ধরে ডব্লিউএইচও বলছে, ‘যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে, এটি অব্যাহত থাকলে আগামী ৬ থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে ইউরোপে ৫০ শতাংশেরও বেশি মানুষ ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।’

এদিকে, ওমিক্রনের উপসর্গগুলো তুলনামূলকভাবে কম সক্রিয় হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা শতাংশ হারে বেশ কম। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, কোনো একটিও উপসর্গ দেখা দিলে একেবারে হালকা ভাবে নেওয়া উচিত হবে না।

ওমিক্রনের সাধারণ লক্ষণগুলো

যুক্তরাষ্ট্রের ‘সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন অ্যানালাইসিস’-এর তথ্য অনুসারে, কাশি, অত্যধিক ক্লান্তি, নাক বন্ধ এবং নাক দিয়ে পানি পড়া ওমিক্রনের সাধারণ উপসর্গ। এছাড়াও হালকা জ্বর, ঘামাচি, শরীরে ব্যথা, অতিরিক্ত ঘামও ওমিক্রনের উপসর্গ।

লন্ডনের কিংস কলেজের জেনেটিক এপিডেমিওলজির অধ্যাপক টিম স্পেক্টর একটি সমীক্ষার মাধ্যমে জানিয়েছেন, ওমিক্রন আক্রান্ত রোগীদের বমি বমি ভাব, বমি হওয়া, খিদে হ্রাস পাওয়ার মতো উপসর্গও দেখা দিচ্ছে।

এছাড়াও ওমিক্রনের আরও কয়েকটি নতুন উপসর্গ সামনে এসেছে, যেগুলি আপাতদৃষ্টিতে মনে হতে পারে শীতকালীন ঠান্ডা লাগার কারণে হচ্ছে। কিন্তু এগুলোও হতে পারে ওমিক্রন সংক্রমণের ইঙ্গিত—

• গলা চুলকানো বা গলা জ্বালা ভাব।

• মাথা ব্যথা।

• ঘন ঘন নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ওপরের কোনো একটি বা ততোধিক উপসর্গ দেখা দিলে দেরি না করে দ্রুত করোনা পরীক্ষা করানো দরকার।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ