খুলনা | রবিবার | ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

আ’লীগ নেতা মনিরুজ্জামান সাগরের মৃত্যুরহস্য জানতে চায় খুলনাবাসী

আশরাফুল ইসলাম নূর |
০৯:১৭ এ.এম | ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২

খুলনা মহানগর আ’লীগের অন্যতম সদস্য ও নগর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক মনিরুজ্জামান সাগরের অস্বাভাবিক মৃত্যু নেমে নিতে পারছেন না কেউ। চোখে ও মাথায় শক্ত আঘাতের চিহৃ এবং পা ও বুকের হাড় ভাঙাসহ মৃত্যুর পূর্বে রহস্যজনক ঘটনাগুলো নানা সন্দেহের সৃষ্টি করছে ঘনিষ্ঠজন ও রাজনৈতিক সহকর্মীদের। এমনকি দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু বলা হলেও ঘটনাস্থল নিয়ে রয়েছে ধ্রুমজাল। তাকে উদ্ধার করে একেরপর এক হাসপাতাল পরিবর্তন করলেও উদ্ধারকারীদের সম্পর্কে কেউ-ই স্পষ্ট করে কিছুই বলতে পারছেন না। বুধবার দিবাগত রাতে নগরীর বসুপাড়া করবস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে; তবে নানান প্রশ্নের উত্তর মিলছে না-আ’লীগ নেতা মনিরুজ্জামান সাগরের অস্বাভাবিক মৃত্যুর মূলরহস্য জানতে চায় খুলনাবাসী। নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে জানাজা পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় নগর আ’লীগের সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল খালেক ও নগর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ সফিকুর রহমান পলাশের বক্তৃতায় এ দাবির জোরালো বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

ইতোমধ্যে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা কয়েকটি স্থানের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ শুরু করেছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। তবে এখনি এবিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোন বক্তব্য দিচ্ছেন না সংস্থাগুলো।

এদিকে, জানানা পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় নগর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ সফিকুর রহমান পলাশ বলেন, মনিরুজ্জামান সাগর ভাই খুলনার সম্ভ্রান্ত সৈয়দ পরিবারের সন্তান। যুবলীগের রাজনীতি যতোদিন একসাথে করেছি; অনেক খুটিনাটি নালিশ আমরা তার কাছে করতাম। সেই কথাগুলো বলার মতোই ভরসার স্থান মনে করতাম তাকেই। গত ১৯ তারিখে আমরা যখন খবর পাই, রাত ১১ থেকে ১২টার মধ্যে এই ঘটনা ঘটে। পরদিন সকালে আমরা সিটি মেডিকেলে যেয়ে দেখি। আমরা আপন ভাইয়ের মতোই ছিলাম।

তিনি আরও বলেন, সাংবাদিকমহল থেকে শুরু করে বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন প্রশ্ন আমাদের কাছে রাখছে। আমরাও দলের রাজনৈতিক নেতাকর্মী সকলেই সচেতন- এই প্রশ্নের সমাধান হওয়া উচিত। না হলে, পরিবার যেমন একটা সন্দেহ নিয়ে সারাজীবন থাকবে- তেমনি আমাদের কাছেও কিন্তু সন্দেহটা থাকবে। যদি রিকশা দুর্ঘটনায় মৃত্যুর শিকার হয়-সেটাও আমাদের জানা উচিত। যদি অন্যকিছু থাকে তাও জানা দরকার। তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে অশ্রুসিক্ত বক্তৃতা শেষ করেন শফিকুর রহমান পলাশ।

জেলা আ’লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদও প্রয়াত আ’লীগ নেতাদের স্মৃতিচারণের সাথে সাথে মনিরুজ্জামান সাগরের নানান দিক তুলে ধরে বক্তৃতা করেন।

পরে নগর আ’লীগের সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বক্তৃতায় বলেন, নগর আ’লীগের অন্যতম সদস্য মনিরুজজআমান সাগর আজ আমাদের মাঝে নেই-এটা ভাবতেও আমাদের কষ্ট লাগছে। মনিরুজ্জামান সাগর শুক্রবারে গভীর রাতে সবাই বলে এ্যাকসিডেন্ট করেছে; আমরা হাসপাতালেও খোঁজ নিয়েছি। তারাও সঠিক কোন তথ্য আমাদের দিতে পারেনি। খুলনার অনেক মানুষ আমার কাছে প্রশ্ন করেছে,. আমি তাদের প্রশ্নের কোন সদোত্তর দিতে পারিনি। আমি তাকে হাসপাতালে দেখতে গেছিলাম। তার পায়ের তিনটি জায়গায় ভেঙে গেছে। তার হাতের দু’টো জায়গায় ভেঙেছে। তার মাথায় আঘাত লেগেছে। কলার বোন ভেঙেছে। এর পরের অবস্থা কি আমাদের বুঝতে হবে। গাড়ীর যাত্রীর যদি এই ক্ষতি হয়, তাহলে ড্রাইভারের তো আর থাকার কথা না। ওই গাড়ী তো অক্ষত থাকার কথা না! কিন্তু দুর্ভাগ্য আমাদের, আমরা আজ পর্যন্ত সেই গাড়ীটি পাইনি। কোথায় সে এ্যাকসিডেন্ট করছে, সেটাও নির্দিষ্ট করে আমরা জানতে পারিনি। অনেক সাংবাদিক আমাকে প্রশ্ন করেছেন; আমার মনেও অনেক প্রশ্ন আছে। সেই সব প্রশ্নের সদোত্তর পাচ্ছি না। আমি খুলনা মহানগর আ’লীগের সভাপতি হিসেবে, আমাদের জেলা আ’লীগের সভাপতিসহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ রয়েছেন- সকলের পক্ষ থেকে প্রশাসনের কাছে বিনীতভাবে অনুরোধ করবো, মনিরুজ্জামান সাগর কিভাবে মারা গেল? প্রশাসনের বিভিন্ন এজেন্সি আছে, যদি তারা চেষ্টা করেন নিশ্চিয়ই এসব প্রশ্নের উত্তর বের হবে। আমরা তার মৃত্যুর কারণটা আমাদের জানান। বক্তৃতার শেষাংশে আ’লীগের প্রতি মনিরুজ্জামান সাগরের অবদান উল্লেখ করেন নগরপিতা।

অন্যদিকে, পরিবারের পক্ষ থেকে মনিরুজ্জামান সাগরের ছোট ভাই রিক্কন বলেন, ঘটনার রাতে হঠাৎ ভাইকে গুরুতর আহত অবস্থায় পাওয়া যায়। বলা হচ্ছে, রিকশা থেকে পড়ে আহত হওয়ার কথা। রিকশা থেকে পড়ে কারও কী চোখ বের হওয়ার উপক্রম হয়? শরীরে এমন আঘতের ধরণ থাকে? প্রশ্ন রাখেন তিনি।

প্রসঙ্গত্ব, আহত অবস্থায় ১৯ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাতে তাকে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে ২০ ফেব্রুয়ারি তাকে শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) আইসিইউতে ভর্তি করান যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সোহেল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২২ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১০টার দিকে মনিরুজ্জামান সাগর মারা যান। গতকাল বুধবার রাতে একাধিক জানাজা শেষে নগরীর বসুপাড়া কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়ে আ’লীগ নেতা মনিরুজ্জামান সাগরের।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ