খুলনা | শুক্রবার | ৩০ জুলাই ২০২১ | ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব মুক্ত করতে এডিস মশার বংশ বিস্তার রোধ করুন

|
১২:০৬ এ.এম | ১৮ জুলাই ২০২১

মহামারী করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেই রাজধানীসহ হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়তে শুরু করেছে। বর্তমানে রাজধানী ও রাজধানীর বাইরের জেলায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে অনেকেই বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। বর্তমানে মশার উপদ্রব যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে, তা উদ্বেগজনক।
ঢাকা ও বাংলাদেশের সব বিভাগের সিটি কর্পোরেশনসহ প্রতিটি সচেতন নাগরিককে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভূমিকা রাখতে এখন থেকেই জরুরি সতর্ক দৃষ্টি দিতে হবে। তা-না হলে করোনার পাশাপাশি এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে। এরই মধ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবরও শোনা গেছে। অতি স¤প্রতি জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের মেধাবী শিক্ষক সাঈদা নাসরিন বাবলী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন স্কয়ার হাসপাতালে আইসিইউতে থাকার পর অকালে প্রাণ হারান। অল্প কিছুদিন আগে জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র মোসলেহ উদ্দিন তরুনের প্রেগন্যান্ট স্ত্রীও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এভাবে আর কোনো প্রাণ যেন না হারায় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি থাকতে হবে আমাদের সবার।  ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সাধারণত এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ডেঙ্গুর মৌসুম হিসেবে ধরা হয়। তবে জুন থেকে সেপ্টেম্বর এই চার মাস মূল মৌসুম। বৃষ্টিপাত, জলাবদ্ধতা ও বাতাসে অত্যধিক আর্দ্রতা এ মশার বংশবিস্তারে সহায়ক। পরিত্যক্ত প্লাস্টিক দ্রব্যাদি, গাড়ির চাকার টায়ার, বাড়ির পানি সংগ্রহের ট্যাঙ্ক, ফুলের টব ও ফুলদানিতে জমে থাকা পানিতে এ মশা বংশবিস্তার করে।
বিশ্বব্যাপী এখন করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। কোলের শিশু থেকে শুরু করে বয়স্ক এবং বৃদ্ধ পর্যন্ত কেউ এখন করোনার আতঙ্ক থেকে মুক্ত নয়। ডেঙ্গু ছোঁয়াচে ও সংক্রামক নয়। এডিস মশা কামড়ালেই কেবল ডেঙ্গু হতে পারে। তবে শুধু সরকারের একার পক্ষে এডিস মশা দূর করা সম্ভব নয়। নাগরিক হিসেবেও আমরা আমাদের দায়িত্ব উপেক্ষা করতে পারি না। কর্তৃপক্ষের দিকে তাকিয়ে না থেকে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বিশেষ করে নিজের ঘরবাড়ি ও আশপাশের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার মাধ্যমে এডিস মশার বংশবিস্তার রোধ করতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বিশেষ করে নিজের ঘরবাড়ি ও আশপাশের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার মাধ্যমে এডিস মশার বংশবিস্তার রোধ করতে হবে। মশার আবাস ও প্রজননস্থল ধ্বংস করে এডিস সমূলে নির্বংশ করে আমরা একটি সুন্দর দেশ, বাসযোগ্য পরিবেশ গড়ে তুলব এটিই হতে হবে আমাদের একমাত্র প্রত্যয়।
 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ