খুলনা | সোমবার | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১১ আশ্বিন ১৪২৮

ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে আইসিটি মামলা

খবর প্রতিবেদন |
০৬:৩৩ পি.এম | ২৯ জুলাই ২০২১

ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের জেলা প্রতিনিধি এ্যাড. আক্কাস সিকদারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ফেসবুকে একটি কমেন্টকে কেন্দ্র করে বুধবার রাতে জেলা আ'লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন মৌসুমি কেকা বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ঝালকাঠি প্রেসক্লাব। অবিলম্বের মামলা প্রত্যাহার করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন প্রেসক্লাব নেতারা।

ঝালকাঠি থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খলিলুর রহমান জানান, একজনের ফেসবুকের একটি পোস্টে আক্কাস সিকদার কমেন্ট করেন। ওই কমেন্টের সূত্রধরে বুধবার রাতে মামলাটি দায়ের করা হয়। এ ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে আওয়ামী লীগ নেত্রী শারমিন মৌসুমি কেকা কর্তৃক এক নারীর চুল কাটা এবং একটি বিদ্যালয়ের শহিদ মিনার ভেঙে স্টল নির্মাণ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ করায় তিনি আক্কাস সিকদারের ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন। চুল কাটার ঘটনায় কেকার বিরুদ্ধে গত বছর ১৭ সেপ্টেম্বর ঝালকাঠির আদালতে মামলা দায়ের হয়েছিল। এরই জের ধরে সাংবাদিক নেতা আক্কাস সিকদারের নামে এ মামলা দায়ের করা হয় বলে অভিযোগ করেন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ।

মামলা দায়েরেরর ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দত্ত, সহ-সভাপতি দুলাল সাহা, মানিক রায়, সহ-সাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলোক সাহাসহ সকল সদস্য।

গত ১৫ জুলাই মোনকা নেয়ামুল বশির নামের একজন তার ফেসবুকে পুলিশ মহাপরিদর্শকের ছবি ও তার বরাত দিয়ে 'মাননীয় চান্দাবাজেরা' উল্লেখ করে চাঁদাবাজদের সাবধান করেন। পাশাপাশি উল্লেখ করেন একটি ট্রাক ঢাকা আসতে ১৯ জায়গায় চাঁদা দিতে হয়। সঙ্গে প্রমাণ হিসেবে অনেকগুলো চাঁদার রিসিটের ছবি প্রকাশ করেন। সেই লেখায় সাংবাদিক আক্কাস সিকদার মন্তব্য করেন। 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ