খুলনা | শনিবার | ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২২ মাঘ ১৪২৯

‘বাংলাদেশি’ নিয়ে কটূক্তির পর ক্ষমা চাইলেন পরেশ রাওয়াল

খবর প্রতিবেদন |
০৪:৫৫ পি.এম | ০২ ডিসেম্বর ২০২২


ভারতের গুজরাটে ক্ষমতাসীন বিজেপির হয়ে প্রচারণা চালাতে গিয়ে বাংলাদেশিদের নিয়ে কটূক্তি করে তুমুল বিতর্কের মুখে পড়েছেন বলিউড অভিনেতা পরেশ রাওয়াল। সাধারণ মানুষের তীব্র প্রতিক্রিয়ার মুখে বাধ্য হয়ে আজ শুক্রবার তিনি তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্টে ক্ষমা চেয়ে পোস্ট দিয়েছেন। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

গত মঙ্গলবার গুজরাটের এক সমাবেশে বক্তৃতা করার সময় পরেশ বলেছিলেন, ‘গুজরাটের জনগণ মুদ্রাস্ফীতি সহ্য করলেও তার পাশে বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গাদের সহ্য করবে না। গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কিন্তু এক সময় কমবে। মানুষের কর্মসংস্থানও হবে। কিন্তু রোহিঙ্গা অভিবাসী ও বাংলাদেশিরা যদি দিল্লির মতো এখানেও আপনার আশপাশে থাকতে শুরু করে, তখন কী হবে? গ্যাস সিলিন্ডার দিয়ে কী করবেন? বাঙালিদের জন্য মাছ রান্না করবেন?’

পরেশ রাওয়াল আরও বলেছিলেন, ‘তাদের (বাংলাদেশিদের) মুখ থেকে যেভাবে গালিগালাজ বের হয়, তাতে তাদের মুখে ডায়াপার পরা দরকার।’

ভারতীয় এ অভিনেতার এসব মন্তব্য মুহূর্তে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের জন্ম দেয়। জনরোষের মুখে আজ অবশেষে ক্ষমা চাইলেন পরেশ রাওয়াল।

এনডিটিভি বলেছে, ভারতীয় এ অভিনেতা মূলত দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে উদ্দেশ্য করে এসব কথা বলেছিলেন। কিন্তু অনেকেই তাঁর এ বক্তব্যকে বাঙালিদের ওপর আক্রমণ করা ‘ঘৃণাত্মক বক্তব্য’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

ক্ষমা চেয়ে টুইটার পোস্টে পরেশ লিখেছেন, তিনি আসলে ‘অবৈধ বাংলাদেশি এবং রোহিঙ্গা’ বোঝাতে চেয়েছেন, ‘বাঙালি’ বোঝাননি। তিনি লিখেছেন, মাছ কোনো সমস্যা নয়। গুজরাটিরা মাছ রান্না করে এবং খায়। আমি প্রকৃতপক্ষে অবৈধ বাংলাদেশি এবং রোহিঙ্গাদের বোঝাতে চেয়েছি। কিন্তু তারপরও আমি যদি আপনার অনুভূতিতে আঘাত করে থাকি, তার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ