খুলনা | শনিবার | ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২২ মাঘ ১৪২৯

নড়াইলে কথা কাটাকাটির জেরে বন্ধুকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

খবর প্রতিবেদন |
০১:৩৯ পি.এম | ০৩ ডিসেম্বর ২০২২


নড়াইলে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে স্বাগতম বৈরাগী (২৮) নামে এক কীর্তন শিল্পীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (২ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে ব্রাজিলের খেলা দেখার জন্য বন্ধুরা সমাবেত হলে সদরের সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়নের শোলপুর দক্ষিণ পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্বাগতম বৈরাগী ওই গ্রামের খোকন বৈরাগীর ছোট ছেলে। পেশায় পারিবারিকভাবে হিন্দু ধর্মীয় গানের শিল্পী (কীর্তন শিল্পী)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কালি পূজোয় প্রতিমা বিসর্জনে যাওয়াকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের দুই বন্ধু স্বাগতম বৈরাগী ও পিন্টু বিশ্বাসের মধ্যে আগে থেকে মনোমালিন্য ছিল। শুক্রবার রাতে ব্রাজিলের খেলা দেখার উদ্দেশে গ্রামের বন্ধু মহল পিকনিকের আয়োজন করে। সেখানে তারা দুজনই উপস্থিত ছিলেন। রাত ১০টার পর সবাই মিলে খাওয়া শেষ করে ব্রাজিলের খেলা শুরুর আগে সময় কাটানোর জন্য তারা তাস খেলতে শুরু করেন। তাস খেলা নিয়ে স্বাগতম ও তার বন্ধু পিন্টুর মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এই ঘটনার পর পিন্টু তার বাড়িতে চলে যান। পরে অন্য বন্ধুরা বিষয়টি মিমাংসার জন্য পিন্টুকে আবার ডেকে আনেন। গ্রামের গোবিন্দর মুদি দোকানের দক্ষিণ পাশে সবাই একত্রিত হন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পিন্টু পেছন থেকে চাকু দিয়ে অতর্কিতভাবে তার বন্ধু স্বাগতমের শরীরে ও ঘাড়ে হামলা করেন। স্থানীয় লোকজন ও অন্য বন্ধুরা আহত স্বাগতমকে নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. শরীফ সোহেল বলেন, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় হাসাপাতালে পৌঁছানোর আগেই স্বাগতমের মৃত্যু হয়েছে।

নড়াইল সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহমুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমন হত্যাকাণ্ড খুবই দুঃখজনক। প্রাথমিকভাবে স্বাগতম বৈরাগীর শরীরে ও ঘাড়ে আঘাতের চিহ্ন দৃশ্যমান। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে খেলা ব্যতীত এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে অন্য কোনো উদ্দেশ আছে কিনা। আসামিদের গ্রেপ্তারে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। 
 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ