খুলনা | শনিবার | ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২২ মাঘ ১৪২৯

নিবন্ধনহীন হাসপাতালে কাজ করলে দায় চিকিৎসকের

খবর প্রতিবেদন |
০৫:২০ পি.এম | ০৬ ডিসেম্বর ২০২২


দেশের সব বেসরকারি ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার অনলাইন নিবন্ধন ও লাইসেন্স প্রক্রিয়া চলমান আছে। তবে এখনও অনেক প্রতিষ্ঠান এই প্রক্রিয়ার আওতায় আসেনি। এ অবস্থায় এসব হাসপাতালে কাজ করলে এর দায়-দায়িত্ব ওই চিকিৎসককে নিতে হবে বলে সতর্ক করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

আজ মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) অধিদফতরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখার পরিচালকের (ভারপ্রাপ্ত) স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সকল বেসরকারি ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে অনলাইন নিবন্ধন ও লাইসেন্স প্রক্রিয়ায় আনার চেষ্টা অব্যাহত আছে। ইতোমধ্যে বেশিরভাগ ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডাটাবেইজে অন্তভুর্ক্ত করা হয়েছে। নিবন্ধনের আওতায় আসা সকল বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ডিসপ্লে-তে তাদের লাইসেন্স নম্বার প্রদর্শন করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তবে এতসব উদ্যোগের পরেও কিছু বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার এখনও নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভুক্ত না হয়ে অবৈধভাবে পরিচালিত হচ্ছে। এ অবস্থায় সকল চিকিৎসককে কোনো হাসপাতাল, ক্লিনিক বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সেবার আগে সেই হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নিবন্ধন সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে সেবা প্রদান করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।

নিবন্ধনহীন হাসপাতাল, ক্লিনিক বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সেবা প্রদানের দায়-দায়িত্ব সেই চিকিৎসকের ওপর পড়বে এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর এই বিষয়ে জানতে পারলে বিধি মোতাবেক যথাযথ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে সকল সরকারি, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নিজ নিজ প্রধানকে অধীনস্থ সকলের নজরে আনার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক বিভাগ।

আদেশের অনুলিপি স্বাস্থ্যের সকল বিভাগীয় পরিচালক, সিভিল সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল প্র্যাকটিশনার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে পাঠানো হয়েছে।
 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ