খুলনা | শনিবার | ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২২ মাঘ ১৪২৯

বিভিন্ন মহলের শোক

ডাঃ এস এ মালেক আর নেই

খবর প্রতিবেদন |
০১:৩৮ এ.এম | ০৮ ডিসেম্বর ২০২২


না ফেরার দেশে চলে গেলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ এস এ মালেক। গত মঙ্গলবার রাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান তিনি  (ইন্নালিল­াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন...আমরা তো আল­াহর এবং আমরা আল­াহর কাছেই ফিরে যাবো)। মঙ্গলবার রাত ১১টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। 
ডাঃ এস এ মালেক দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত সমস্যাসহ শরীরের নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। বুধবার বাদ জোহর কলাবাগান মাঠে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে জানাজা শেষে তাঁকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়। 
ডাঃ এস এ মালেকের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।
ভাষা আন্দোলন, ৬ দফা ও একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধসহ গণতান্ত্রিক সব আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন তিনি। ১৯৭৩ সালে আ’লীগের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ফরিদপুর-১ আসন থেকে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
আ’লীগ খুলনা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক রাজনৈতিক উপদেষ্টা, আ’লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ এস এ মালেকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন খুলনার আ’লীগ।দলটির নেতৃবৃন্দ মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। 
বিবৃতিদাতারা হলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, মহানগর আ’লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, জেলা আ’লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ হারুনুর রশীদ, মহানগর সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, জেলা সাধারণ সম্পাদক এড. সুজিত অধিকারী।
খুুলনা বিশ্ববিদ্যালয় : বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ এস এ মালেকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ, মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। অনুরূপভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, ট্রেজারার অধ্যক্ষ অমিত রায় চৌধুরী ও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস। এছাড়া শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছে খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু পরিষদ।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ