খুলনা | শনিবার | ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | ২২ মাঘ ১৪২৯

থানার প্রধান ফটক বন্ধ, মোড়ে মোড়ে পুলিশ

খুলনা নগরীতে সতর্ক অবস্থানে পুলিশ থানাগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা

সোহাগ দেওয়ান |
০১:২৮ এ.এম | ০৯ ডিসেম্বর ২০২২


ডেটলাইন ১০ ডিসেম্বর, ঢাকায় বিএনপি’র মহাসমাবেশকে ঘিরে চরম উৎকন্ঠা ও উত্তেজনা দেশের সর্বত্রে। বুধবার ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপি’র সাথে সংঘর্ষে একজন নিহত ও নেতা-কর্মী গ্রেফতারের পর দেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়তি সর্তকতা নিয়েছে পুলিশ। 
এদিকে কঠোর নিরাপত্তা ও সতর্ক অবস্থান গ্রহণ করেছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ। কেএমপি’র থানাগুলোর প্রধান ফটক বন্ধ রেখে বিভিন্ন মোড়ে বাড়তি পুলিশী নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশ বলছে, যেকোন অরাজকতা সামলে নিতে এ ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।  
সরেজমিন গতকাল বৃহস্পতিবার খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের থানা কম্পাউন্ডগুলোতে দেখা গেছে, নিরাপত্তাজনিত কারনে প্রধান ফটক বন্ধ রাখা হয়েছে। পাশাপাশি প্রতিটি থানা এলাকার গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে বাড়তি পুলিশী টহল ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিএনপি’র ঢাকার সমাবেশকে লক্ষ্য করে যাতে খুলনায় কোন প্রকার অস্থিতিশীল পরিস্থিতি না ঘটে সে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হয়েছে। 
কেএমপি’র ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকার সমাবেশকে কেন্দ্র করে যাতে খুলনা মেট্রোপলিটন এলাকায় দুর্বৃত্তরা যাতে কোন প্রকার নাশকতা কর্মকান্ড করতে না পারে সেজন্য এবাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সাধারণ মানুষের জান মালের নিরাপত্তা বজায় রাখতে পরবর্তি নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত আমাদের এ কার্যক্রম অব্যহত থাকবে বলেও জানান তিনি। 
অপর ডেপুটি কমিশনার (উত্তর) মোল­া জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ঢাকায় বিএনপি’র নেতা-কর্মীরা বিনা উস্কানীতে পুলিশের উপরে হামলা চালিয়েছে। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঢাকায় তাদের সমাবেশকে কেন্দ্র করে যাতে খুলনায় কোন প্রকার সহিংসতা ঘটাতে না পারে এজন্যই সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে বাড়তি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।  

প্রিন্ট

আরও সংবাদ