খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২৫ এপ্রিল ২০২৪ | ১১ বৈশাখ ১৪৩১

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কবির হোসেন আর নেই

খবর প্রতিবেদন |
১২:৪৮ এ.এম | ০৪ মে ২০২৩


বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা রাজশাহীর বর্ষীয়ান নেতা এড. কবির হোসেন আর নেই। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার বিকেল ৩টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল­াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন...আমরা তো আল­াহর এবং আমরা আল­াহর কাছেই ফিরে যাবো)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।
কবির হোসেন রাজশাহী মহানগরীর উপ-শহরের বাসিন্দা ছিলেন। বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে কবির হোসেন মারা গেছেন। রাজশাহীতেই তাকে সমাহিত করা হবে।
রামেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এফএম শামীম আহাম্মদ জানান, প্রবীণ রাজনীতিক কবির হোসেন নানা ধরনের শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। তার ডায়াবেটিস ছিল। এছাড়া হৃদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি এবং উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন তিনি। গত সোমবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর থেকেই তিনি আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের হাত ধরেই আইন পেশা থেকে রাজনীতিতে এসেছিলেন কবির হোসেন। বিএনপি’র প্রার্থী হিসাবে ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনি টানা তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর মধ্যে ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে রাজশাহী-২ এবং ২০০১ সালে রাজশাহী-৫ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। প্রথমবার সংসদ সদস্য হয়েই তিনি স্থানীয় সরকার, পল­ী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী এবং পরে ভূমি প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান।
এরপর ২০০৮ সালের নির্বাচনে বিএনপি’র মনোনয়নে কবির হোসেন রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসন থেকে নির্বাচন করেন। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর কাছে পরাজিত হয়ে রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েন। বয়সের ভারে আর বাড়ি থেকে বের হতেন না। উপ-শহরের বাসাতেই অনেকটা নিঃসঙ্গ জীবন যাপন করতেন। ২০০৮ সালের পর মাত্র দুই একটি দলীয় কর্মসূচিতে তাকে দেখা গেছে।

 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ