খুলনা | বুধবার | ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮ ফাল্গুন ১৪৩০

খুলনা আ’লীগ ও খুবি উপাচার্যের পৃথক শোক

আ’লীগ নেতা শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ফকির আবু হোসেনের ইন্তেকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক |
০১:৩৯ এ.এম | ১০ জুলাই ২০২৩


খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ফকির আবু হোসেন ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল­াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন...আমরা তো আল­াহর এবং আমরা আল­াহর কাছেই ফিরে যাবো)। তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্য জনিত অসুস্থতায় ভুগে গতকাল রবিবার দুপুর ২টায় নগরীর বাবুখান রোডস্থ নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ১ ছেলে, ৪ মেয়ে, নাতি নাতনি ও আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমের জানাজার নামাজ রবিবার বাদ এশা আযম খান কমার্স কলেজ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে মরহুমকে টুটপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়।
অপর দিকে অধ্যাপক ফকির আবু হোসেনের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, নবনির্বাচিত মেয়র ও মহানগর আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তালুকদার আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা শোকাহতদের পাশে যান। নেতৃবৃন্দ সেখানে কিছু সময় অবস্থান করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের  ধৈর্য্য ধারণের জন্য সান্ত¡না দেন। পরে নেতৃবৃন্দ জানাজায় অংশগ্রহণ করেন।  
এ সময় উপস্থিত ছিলেন নগর আ’লীগের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ শহিদুল ইসলাম, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, মোঃ আশরাফুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আলমগীর কবির, এড. খন্দকার মজিবর রহমান, মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌস আলম চাঁন ফরাজী, বীরেন্দ্রনাথ ঘোষ, মাহবুবুল আলম বাবলু মোল­া, এড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, শেখ সৈয়দ আলী, তসলিম আহমেদ আশা, এস এম আকিল উদ্দিন, মোড়লগঞ্জ পৌর মেয়র মনি তালুকদার, চৌধুরী মিনহাজ উজ্জামান সজল, ফেরদৌস হোসনে লাবু, মোঃ সাহাবুদ্দিন, ফয়েজুল ইসলাম টিটো, রনজিত কুমার ঘোষ, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল, মীর বরকত আলী, সুজন আহমেদ, কাউন্সিলর ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, জি এম রেজাউল, মাস্টার মনিরুল ইসলাম খুবির ডেপুটি রেজিস্ট্রার দিপক কুমার মন্ডল ।
জানাজায় অংশগ্রহণ করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাবেক সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জমান মনি, বিএনপি নেতা জাফর উল­াহ খান সাচ্চু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, রবিউল ইসলাম রবি, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার টিপু সুলতান, ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা মনির হোসেনসহ মরহুমের ছাত্র ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। 
উলে­খ্য, অধ্যাপক ফকির আবু হোসেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার ছিলেন, তিনি সরকারি আযম খান কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে শিক্ষকতা করেছেন। অবসর জীবনে তিনি সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেন। এ সময়ে তিনি খুলনা সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়াও তিনি নানা সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন।  
শোক : অধ্যাপক ফকির আবু হোসেনের মৃত্যুতে গভীর শোক, মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন খুলনা আ’লীগ। বিবৃতিদাতারা হলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, নগর আ’লীগের সভাপতি ও নবনির্বাচিত মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল এমপি, জেলা আ’লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ হারুনুর রশীদ, নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা, জেলা সাধারণ সম্পাদক এড. সুজিত অধিকারী।
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় : প্রাক্তন ট্রেজারার ফকির আবু হোসেনের মৃত্যুতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন গভীর শোক প্রকাশ মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। অনুরূপভাবে শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, ট্রেজারার প্রফেসর অমিত রায় চৌধুরী, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস। 
উলে­খ্য, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ফকির আবু হোসেন ২০০৯ সালের ২৪ জুন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ ট্রেজারার হিসেবে যোগদান করে ৪ বছর সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। 
সাবেক ভিপি পরিষদ : অনুরূপ বিবৃতিতে গভীর শোক প্রকাশ, বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা কর্মাস কলেজ ভিপি পরিষদের অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, এড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, শাহ মোঃ হাফিজুর রহমান, চৌধুরী বাশার ওয়াদুদ সুমন, এম এ নাসিমসহ সকল সদস্যবৃন্দ। 
মহানগর কৃষক লীগ : অনুরূপ বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা মহানগর কৃষকলীগের আহবায়ক ও সদস্য সচিবসহ সকল সদস্যবৃন্দ। 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ