খুলনা | শুক্রবার | ২৬ জুলাই ২০২৪ | ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

জুয়া-অর্থ পাচার নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সতর্কতা

খবর প্রতিবেদন |
১০:২৫ পি.এম | ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩


মুঠোফোনের আর্থিক সেবার (এমএফএস) মাধ্যমে যেন অনলাইনে জুয়া ও অবৈধ বাণিজ্যের কোনো লেনদেন না হয় সে বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

মোবাইল ব্যাংকিং ও অনলাইনে জুয়ার মাধ্যমে অর্থ পাচার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের এক বিজ্ঞপ্তিতে এমন সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাম্প্রতিককালে নিবাসী/অনিবাসী বাংলাদেশি ব্যক্তি কর্তৃক অনলাইন বেটিং/জুয়া, ক্রিপ্টোকারেন্সী, ফরেক্স ট্রেডিং ও পঞ্জি স্কিম এবং এ জাতীয় অ্যাপস ও ওয়েবসাইট ব্যবহার করে বৈদেশিক মুদ্রায় আর্থিক লেনদেন ও বিনিয়োগের খবর পাওয়া যাচ্ছে। এ ধরনের লেনদেন বাংলাদেশ ব্যাংক বা অন্য কোনো নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃক অনুমোদিত নয় এবং বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৯৪৭; সন্ত্রাসবিরোধী আইন, ২০০৯ এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ এর আওতায় দণ্ডণীয় অপরাধ।

এমন বিনিয়োগের নজির পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়ে এতে বলা হয়, উল্লেখিত কার্যক্রমসহ অননুমোদিতভাবে বৈদেশিক মুদ্রায় বিদেশে বিনিয়োগের নজির পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এমতাবস্থায় সম্ভাব্য আর্থিক ও আইনগত ঝুঁকি এড়ানোর লক্ষ্যে উল্লেখিত অননুমোদিত লেনদেন বা এসব লেনদেনে সহায়তা প্রদান ও এর প্রচার থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকে আর্থিক গোয়েন্দা সংস্থা বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ), পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগ ও বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগ এবং বিকাশ, নগদ, রকেট ও উপায় এর এমডি ও সিইওদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। যার সভাপতিত্বে করেন বিএফআইইউ প্রধান মাসুদ বিশ্বাস।

ওই সভায় বলা হয়, হুন্ডি, অনলাইন গ্যাম্বলিং (জুয়া), গেমিং, বেটিং, ফরেক্স এবং ক্রিপ্টোকারেন্সির অবৈধ লেনদেন বেড়েছে। মোবাইল ব্যাংকিংসহ ডিজিটাল পেমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে সহজে হুন্ডিসহ এসব অবৈধ লেনদেন চলছে। ফলে একদিকে মুদ্রা পাচার বেড়েছে, অন্যদিকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা হারাচ্ছে দেশ। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশের অর্থনীতি।

ফলে সভায় বিএফআইইউ প্রধান অবৈধ হুন্ডি, অনলাইন জুয়া, বেটিং, ফরেক্স ও ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে প্রচার-প্রচারণা বাড়ানোর তাগিদ দেন।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ