খুলনা | সোমবার | ০৪ মার্চ ২০২৪ | ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

ডেঙ্গু পরীক্ষায় বাড়তি ফি: ভাটারা জেনারেল হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা

খবর প্রতিবেদন |
০৬:০৭ পি.এম | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩


ডেঙ্গু পরীক্ষায় বাড়তি ফি আদায় ও লাইসেন্স নবায়ন না করায় রাজধানীর বেসরকারি ভাটারা জেনারেল হাসপাতাল বন্ধ করে দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

সারাদেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। প্রতিদিন শত শত মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে মশাবাহিত এই রোগে। মৃতের তালিকাটাও দীর্ঘ হচ্ছে প্রতিনিয়ত। ডেঙ্গু সংক্রমণ বাড়ায় বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে বাড়তি ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যায়।

যদিও ডেঙ্গুরোগীদের এনএস- ১ অ্যান্টিজেন পরীক্ষার খরচ সরকারি হাসপাতালের জন্য ৫০ টাকা এবং বেসরকারি হাসপাতালের জন্য ৩০০ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার।

২০১৯ সালের ৩০ জুলাই বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতে ডেঙ্গু পরীক্ষার ফি সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল। পরে তা কমিয়ে এবার সরকারি হাসপাতালে ৫০ টাকা এবং বেসরকারি হাসপাতালে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা নির্ধারণ করে দেয় সরকার।

কিন্তু অনেক বেসরকারি হাসপাতালে সরকারি নির্দেশনা না মেনে ডেঙ্গু পরীক্ষায় বাড়তি ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যায়। এ নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর হুঁশিয়ারি দিলেও অনেকে তা মানেন না। আজ ভাটারা জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে ডেঙ্গু পরীক্ষায় বাড়তি টাকা নেওয়াসহ বেশ কিছু অভিযোগ পায় স্বাস্থ্য অধিদফতর। পরে হাসপাতালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ক্লিনিক ও হাসপাতালগুলোর অতিরিক্ত পরিচালক ডা. বেলাল হোসেন বলেন, বেশ কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে ভাটারা জেনারেল হাসপাতালকে বন্ধ ঘোষণা করেছি। আমরা এই কার্যক্রম আরও কিছুদিন পরিচালনা করব।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ