খুলনা | সোমবার | ১৭ জুন ২০২৪ | ৩ আষাঢ় ১৪৩১

চুয়াডাঙ্গায় স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে স্কুল শিক্ষক গ্রেফতার

খবর প্রতিবেদন |
০১:২৬ পি.এম | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩


চুয়াডাঙ্গায় ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি সহকারী শিক্ষক শাকিল আরাফাতকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলার দায়ের করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাব্বুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার শাকিল আরাফাত ঝিনাইদহ জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার ফরাশপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি সহকারী শিক্ষক শাকিল আরাফাতের কাছে তার ভাড়া বাসায় প্রাইভেট পড়তো একই স্কুলের ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রী। সকালে প্রাইভেট পড়ে আসার সময় অভিযুক্ত শিক্ষক ভুক্তভোগী ছাত্রীকে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীদের কিছু খাতা দেখে দেওয়ার জন্য সকাল সাড়ে ৬টার সময় আসতে বলেন। ওই ছাত্রী শিক্ষকের কথা মত সকালে তার বাসায় যায়। সকালে বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে ছাত্রীকে তার বেড রুমে নিয়ে যেয়ে শ্লীলতহানির চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী ছাত্রী প্রতিরোধ সৃষ্টি ঘর থেকে বেরিয়ে পালিয়ে আসে। পরে ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষক শাকিল আরাফাতকে গ্রেফতার করেন।  

ওসি মাহাব্বুর রহমান জানান, ছাত্রীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আগামীকাল সকালে তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ