খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

সালমানকে ফের হত্যার হুমকি, নতুন পদক্ষেপ নিচ্ছে মুম্বাই পুলিশ

খবর প্রতিবেদন |
০২:৪২ পি.এম | ৩০ নভেম্বর ২০২৩


একের পর এক প্রাণনাশের হুমকি। ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা নিয়ে তাই চলতে হয় সালমান খানকে। তবুও পিছু ছাড়ছে না হুমকি-ধামকি। সম্প্রতি ফের ভাইজানকে খতম করার ভয় দেখানো হয়েছে। তাতেই নড়েচড়ে বসেছে ভারতীয় পুলিশ। সুপারস্টারের নিরাপত্তায় নতুন পদক্ষেপ নিতে চলেছে তারা।

লরেন্স বিষ্ণোই গ্যাংয়ের তরফে এর আগেও বলিউড সুপারস্টারকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল। তবে এবার বিদেশের সঙ্গে এর যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছে মুম্বাই পুলিশ।

বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “ফেসবুকের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করে ওই পোস্টের ডিটেইলস জানতে চেয়েছিলাম। জানা গেছে, ইউরোপের কোনও এক দেশ থেকে ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সালমানকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছে। এটা রসিকতা না আদতে খুনের হুমকি? স্থানীয় পুলিশ ও অপরাধ দমন শাখা বিষয়টা খতিয়ে দেখছে। কানাডায় জিপ্পি গরিওয়ালের বাড়ির সামনে যে গোলাগুলি হয়েছে, তার সঙ্গে এর কোনও যোগ রয়েছে কিনা, সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

সম্প্রতি জিপ্পি গরিওয়ালের ভেনক্যুভারের হোয়াইট রক এরিয়ার বাড়ির সামনে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতিকারী। এ ঘটনার দায় লরেন্স বিষ্ণোই স্বীকার করার পরই ফেসবুক পোস্টে সালমানকে উদ্দেশ্য করে এক বার্তা দেওয়া হয়।

সেখানে সাফ লেখা- “সালমান একদম ভেবো না যে দাউদ তোমাকে বাঁচাবে। এবার কেউ বাঁচাতে পারবে না তোমাকে। এখন তুমি আমাদের হাতের নাগালে। এটা ট্রেলার দেখালাম। এবার পুরো সিনেমা দেখানো বাকি। যে দেশে যাওয়ার ইচ্ছা যাও। মৃত্যুর জন্য কোনও ভিসার প্রয়োজন হয় না। ওটা অপ্রত্যাশিতভাবেই আসে।”

গত বছর সালমান খানকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল সন্ত্রাসীরা। এক উড়ো চিঠির মাধ্যমে এই হুমকি পেয়েছিলেন তিনি। এরপর থানায় অভিযোগ জানিয়েছিল খান পরিবার। ওই ঘটনায় মহাকাল নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছিল মুম্বাই পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানা গিয়েছিল, এর পেছনে গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই যুক্ত আছেন।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ