খুলনা | শুক্রবার | ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রায় ৫ হাজার ‘সন্দেহজনক’ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে মেটা

খবর প্রতিবেদন |
০৫:০৮ পি.এম | ০১ ডিসেম্বর ২০২৩


চীন সংশ্লিষ্ট সন্দেহে ৪ হাজার ৭৮৯টি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে মেটা। ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা গতকাল বৃহস্পতিবার এসব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার কথা জানায়। এই প্রযুক্তি জায়ান্টের দাবি, ২০২৪ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ঘিরে চীনের অপপ্রচার রোধের জন্য এই অ্যাকাউন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

মেটার দাবি, চীনের এই প্রভাব বিস্তারের উদ্যোগ ২০২৩ সালের প্রথম তিন মাসের মাথায় শনাক্ত করা হয়েছিল। আমেরিকার রাজনীতি বা চীনের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয় নিয়ে ইংরেজিতে বিভিন্ন পোস্ট করেন এই ফেসবুক অ্যাকাউন্টধারীরা। এ ছাড়া এক্স (সাবেক টুইটার) থেকে তথ্য নিয়ে মার্কিন রাজনীতির প্রধান দুই প্রতিপক্ষেরই সমালোচনা করা হতো এসব অ্যাকাউন্ট দিয়ে।  

মেটা আরও জানিয়েছে, এই ফেসবুক অ্যাকাউন্টগুলো আসলে ভুয়া, এদের নেটওয়ার্কে উদারপন্থি ও রক্ষণশীল দুই ধাঁচের অ্যাকাউন্টই আছে। একে অপরের পোস্টগুলো শেয়ার এবং কিছু পোস্ট এক্স থেকে সরাসরি কপি করে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহার করত তারা। ভুয়া রাজনীতিবিদ ও ভুয়া নাম–পরিচয়ে পোস্টগুলো শেয়ার করা হতো।

এসব ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের কার্যকারিতা সম্পর্কে মেটা বলছে, এই পদ্ধতি দলীয় উত্তেজনা বাড়াতে বা রাজনীতিবিদদের সমর্থক বাড়াতে পারে কিনা তা স্পষ্ট না। তবে এই অ্যাকাউন্টগুলো এমনভাবে বানানো, দেখলে একেবারে আসল আইডি বলে মনে হয়।

মেটার অভিযোগ, এ বছর যুক্তরাষ্ট্রে চালানো চীনের এমন পাঁচ দফা ভুয়া প্রচারণা প্রতিহত করা হয়েছে। যেটা অন্য দেশের তুলনায় বেশি। তবে এই ভুয়া ফেসবুক নেটওয়ার্কটির জন্য চীন সরকার বা দেশটির অন্য কোনো নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে দায়ী করা হয়নি।

এর আগে এ বছরের তৃতীয় ত্রৈমাসিকে রাশিয়া ভিত্তিক একটি নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দিয়েছিল মেটা। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের তথ্য ছড়িয়ে দিয়েছিল এই নেটওয়ার্কটি।

প্রিন্ট

আরও সংবাদ