খুলনা | বুধবার | ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮ ফাল্গুন ১৪৩০

পাঁচ বছরের আয় বেড়েছে সালাম মুর্শেদীর, বেড়েছে সম্পদও

খবর প্রতিবেদন |
০৩:১৫ পি.এম | ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩


পাঁচ বছরের ব্যবধানে প্রায় ৪৩ কোটি টাকার সম্পদ বেড়েছে খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম মূর্শেদীর। ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে হলফনামায় দেওয়া হিসাব বিবরণীতে তার সম্পদ ছিল ৯৫ কোটি ১১ লাখ টাকার। গত পাঁচ বছরে তার সম্পদ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকায়।

গত পাঁচ বছরে সালাম মূর্শেদীর আয়ও বেড়েছে। আগে তার বার্ষিক আয় ছিল ৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। পাঁচ বছরের ব্যবধানে আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ২ লাখ টাকা। সংসদ সদস্য থাকাকালীন তার ওপর নির্ভরশীলদের সম্পদও বেড়েছে। ২০১৮ সালে তার ওপর নির্ভরশীলদের সম্পদ ছিল ১ কোটি ৩৩ লাখ টাকার। পাঁচ বছরের ব্যবধানে ১৮ গুণ বেড়ে বর্তমানে সম্পদ দাঁড়িয়েছে ২৪ কোটি ৯১ লাখ টাকার।

আবদুস সালাম মূর্শেদীর হলফনামা থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। গত ২৮ নভেম্বর মনোনয়নপত্রের সঙ্গে তিনি নিজেই সম্পদের এই হিসাব জমা দিয়েছেন।

হলফনামায় নিজেকে পাবলিক-প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং পোশাক শিল্প, বস্ত্র শিল্প, ব্যাংক, হাসপাতালের পরিচালক হিসেবে উল্লেখ করেছেন আব্দুস সালাম মূর্শেদী। তিনি উচ্চ মাধ্যমিক পাস। তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই।

২০১৮ সালে হলফনামায় তিনি বার্ষিক আয় উল্লেখ করেছিলেন ৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। তার স্ত্রীর আয় ছিল ১ কোটি ১৭ লাখ টাকা। তার নিজের ৯৫ কোটি ১১ লাখ টাকা, স্ত্রীর ২২ কোটি ৩১ লাখ টাকা এবং নির্ভরশীল (মেয়ে) সম্পদ ছিল ১ কোটি ৩৩ লাখ টাকার।

গত ২৮ নভেম্বর জমা দেওয়া হলফনামায় তিনি বার্ষিক আয় দেখিয়েছেন ৮ কোটি ২ লাখ টাকা এবং স্ত্রীর আয় ১ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। বর্তমানে তার ১৩৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকার, স্ত্রীর ১৮ কোটি ৩৫ লাখ টাকার এবং নির্ভরশীলের ২৪ কোটি ৯১ লাখ টাকার সম্পদ রয়েছে।

সালাম মূর্শেদীর হাতে রয়েছে নগদ ২৯ লাখ ৫৩ হাজার টাকা, ব্যাংকে জমা রয়েছে ৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা। এছাড়া বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ার রয়েছে ৯৪ কোটি ৪২ লাখ টাকার। গাড়ি, গৃহ সম্পত্তি ছাড়াও অন্যান্য অস্থাবর সম্পদ রয়েছে ২৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকার। স্থাবর সম্পদের মধ্যে রয়েছে ১১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা মূল্যের ভবন। ব্যাংকে তার ঋণ রয়েছে ৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকা।

তার স্ত্রীর কাছে ১ কোটি ৮৬ লাখ নগদ টাকা, ব্যাংকে ১৭ লাখ ৭৪ হাজার টাকা এবং ৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকার শেয়ার রয়েছে। অন্যান্য সম্পদ রয়েছে ৭ কোটি ৩৩ লাখ টাকা মূল্যের। 

প্রিন্ট

আরও সংবাদ