খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

‘কারার ওই লৌহ কপাট’ বিকৃত, এ আর রহমানের বিচার দাবি

খবর বিনোদন |
০৪:৫৪ পি.এম | ১০ নভেম্বর ২০২৩


কাজী নজরুল ইসলামের কারার ও ‘কারার ওই লৌহ কপাট’ গানটি নতুন করে তৈরি করেছেন অস্কারজয়ী সংগীতজ্ঞ এ আর রহমান। আর এ গান নিয়ে ইতোমধ্যে বাঙালিদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে যশোরের চৌগাছার গরিবপুর এলাকায় পাকিস্তানি সেনাদের প্রতিহত করেছিল ভারতীয় সেনারা।

ওই সময়ের যুদ্ধের ঘটনা অবলম্বনে অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা ‘পিপ্পা’ বানিয়েছেন বলিউড নির্মাতা রাজা কৃষ্ণা মেনন। ওটিটিতে মুক্তি পেতে যাচ্ছে সিনেমাটি। তবে এর মধ্যেই মুক্তি পেয়েছে সিনেমার একটি গান ‘কারার ওই লৌহ কপাট’। কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা এই গানটিকেই ব্যবহার করা হয়েছে ‘পিপ্পা’ ছবিতে। গানটিকে নতুনভাবে আয়োজন করেছেন অস্কারজয়ী গায়ক এ আর রহমান।

গানটি গেয়েছেন একাধিক বাঙালি গায়ক। এদের মধ্যে আছেন তীর্থ ভট্টাচার্য, রাহুল দত্ত, পীযুষ দাস, শালিনী মুখোপাধ্যায় প্রমুখ। কিন্তু এই গান মোটেই পছন্দ হয়নি নেটিজেনদের। বরং ভীষণই বিরক্ত হয়েছেন।  

কারার ওই লৌহ কপাট গানটিকে নতুন যে ভাবে অ্যারেঞ্জ করা হয়েছে সেটা আসল গানটির থেকে অনেকটাই আলাদা। বাঙালিরা এই গানটিকে যেভাবে শুনে আসছেন সেটার সঙ্গে এটার যে কোনও মিল নেই সেটা বলাই বাহুল্য। ফলে তাঁদের কানে বাজছে নতুন ভার্সন। অনেকেই সেই জেদ, দাপট গানটির মধ্যে খুঁজে পাননি। ফলে চলছে চরম কটাক্ষ।

নেটিজেনরা বলছেন, ‘কারার ওই লৌহ কপাট’ গানটি নষ্ট করে দিলেন এ আর রহমান। এছাড়াও ভারত-বাংলাদেশ ও ভারতের শিল্পীরাও স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন জাস্ট গানটা নষ্ট করেছেন অস্কারজয়ী রহমান। এদের মধ্যে অনেক নামী দামী নজরুল গায়ক রয়েছেন।

এদিকে ভারতের পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী এটাকে অপরাধ হিসেবে ধরে এ আর রহমানের বিচার চেয়েছেন। এই জনপ্রিয় নজরুলগীতিকে বিকৃত করার জন্য স্রষ্টার বিচার দাবি করেছেন সরকারের কাছে ৷ তাঁর কথায়, সামাজিক মাধ্যমে কী হবে এত প্রতিবাদ করে? মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীকে এই ব্যাপারে জানাতে হবে।

তিনি বলেন, আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিংবা নরেন্দ্র মোদি বলছি না, বলছি ওই সম্মানীয় পদদুটিকে জানাতে হবে এই কথা। এত বড় সাহস কী করে হল একজন শিল্পীর, কাজী নজরুল ইসলামের মতো একজন কবির সৃষ্টিকে এ ভাবে বিকৃত করার। এই প্রজন্মের অনেকে জানেই না এই গান । জানেই না কে লিখেছে । এর বিচার চাই । আর বিচার করতে পারেন সরকার। জানাতে হবে আইপিআরএস (ইন্ডিয়ান পারফর্মিং রাইট সোসাইটি) বডিকে । যেখানে জাভেদ আখতরের মতো মানুষ রয়েছেন । বিচার চাই ।